Breaking

Wednesday, January 2, 2019

২০১৯ বছরের প্রথম দিনে ভারতে আলো দেখল ৬৯,৯৪৪ শিশু


বছরের প্রথমদিনেই ৬৯,৯৪৪টি নবজাতক জন্ম নিয়েছে ভারতে। হিসাব অনুযায়ী যা পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি। মঙ্গলবারে প্রকাশিত প্রকটি রিপোর্ট । অনুযায়ী এমনটাই জানিয়েছে দ্য ইউনাইটেড নেশনস ইন্টারন্যাশানাল চিলড্রেন্স এমার্জেন্সি ফান্ড (ইউনিসেফ)।


  Ø বিশ্বের নবজাতকের ১৮ শতাংশ ভারতে।
  Ø ২০১৮ সালের শেষ নবজাতকের জন্ম ফিজিতে।
  Ø ২০১৯ সালের প্রথম নবজাতকের জন্ম আমেরিকায়।

    ইউনিসেফ-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, জন্ম একই রাতে চিনে জন্ম নিয়েছে ৪৪,৯৪০টি শিশু। বলার অপেক্ষা রাখে না, এক্ষে্ত্রে চিনকে পেছনে ফেলে দিয়েছে ভারত।


    উল্লেখ্য, নাইজেরিয়াতে ওই দিনে জন্ম হয়েছে ২৫,৬৮৫টি শিশু। জানা গিয়েছে, রীতি অনুযায়ী সরকারের তরফে বলা হয়েছে নবজাতকদের উচ্চমানের স্বাস্থ্য পরিষেবা দেওয়ার জন্য অন্যান্য সমস্ত কিছুর সঙ্গে শিশুর মাপও নেওয়া হবে এখন থেকে। ইউনিসেফ-এর ডেপুটি এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর শার্লট পেট্রি গোর্নিটজকা এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘চলুন এই নতুন বছরে শপথ নেওয়া যাক, প্রতিটি শিশুকে সমস্ত অধিকার দেওয়া হবে, আর সেটা শুরু করতে হবে তার বেঁচে থার অধিকার দেওয়ার মাধ্যমেই।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা যদি প্রশিক্ষণের জন্য বিনিয়োগ করি এবং স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্মীদের প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম দিই, তবে সদ্যোজাতরা নিরাপদে জন্ম নিতে পারবে এবং এভাবেই আমরা ১০ লক্ষেরও বেশি সদ্যোজাতকে বাঁচাতে পারব।’


    ইউনিসেফের রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১৭ সালে জন্মানোর দিনই মারা গিয়েছে প্রায় ১০ লক্ষ শিশু। পাশাপাশি প্রায় ২৫ লক্ষ শিশুর মৃত্যু হয়েছে জন্মের এক মাসের মধ্যেই। তাদের মধ্যে বেশিরভাগেরই মৃত্যু হয়েছে অকাল প্রসব, প্রসব সংক্রান্ত জটিলতা এবং সেপ্টিসিস ও নিউমোনিয়ার মতো কিছু সংক্রমণের কারণে। ইউনিসেফ-এর তরফে জানানো হয়েছে যে, ভারতের জন্ম নেওয়া ৬৯,৯৪৪টি শিশু সহ বিশ্বব্যাপী প্রায় ৩,৯৫,০৭৫টি শিশু জন্ম নিয়েছে বছরের প্রথম দিনে। এর মধ্যে এক চতুর্থাংশ শিশু জন্মেছে দক্ষিণ এশিয়াতে। এই তালিকার চার নম্বরে রয়েছে পাকিস্তানের (১৫.১১২ শিশু) নাম, এবং সাতে রয়েছে বাংলাদেশ (৮,৪২৮ শিশু)। আর আমেরিকা ১০৮৬টি শিশু আটে। রিপোর্ট অনুযায়ী, প্রতিবছর বিশ্বব্যাপী প্রায় ১৮ শতাংশ শিশুর জন্ম হয় ভারতেই।

No comments:

Post a Comment