Breaking

Sunday, January 13, 2019

সুন্দর দেকাতে রোজ শেভ করেন বিশেষজ্ঞ হুডা কেটন



সৌর্ন্দযপ্রিয় মেয়েদের বলা হচ্ছে – সাজগোজের সময় ত্বকের আরও জেল্লা চান? তবে ছেলেদের মতো রোজ ‘দাড়ি’ কামান। হ্যাঁ, রেজার দিয়ে! নিশ্চয়ই বেজায় অবাক হলেন! এ উপদেশ কোনও সাধারণের নয়। দুবাইয়ের নামকরা বিউটি ব্লগার হুডা কেটনের। কেটন নিজেও রোজ নিয়ম করে মুখমন্ডল ‘শভ’ করেন। 

পৌষ শেষ হতে আর বেশি দেরি নেই। আর পরেই দু’মাস ধরে টানা বিয়ের মরসুম। বিয়েরবাড়ি যাওয়া মানেই বাড়তি সাজগোজ, মুখে অতিরিক্ত কিছু প্রসাধনী। যারা ভাবছেন বয়েবাড়ি গেলে কেউ যাতে আপনার থেকে চোখ ফেরাতে না পারে, তারা প্রথমে শেভ করে তারপর মুখে প্রসাধনী লাগান। ঠিক এমনটই সম্প্রতি জানিয়েছেন হুডা কেটন। সাংবাদিকেরা তার কাছে জানতে চেয়েছিলেন, কেটনের রূপটানের রহস্য কী? কেটন কেবল শেভ করার রহস্যই ফাঁস করেননি, শেভিং ক্রিম মাখা মুখে নিজের একধিক ছবি ও একটি ভিডিও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন। কেটন বলেছেন, ‘জানেন কি, মেক-আপের আগে মেয়েদের শেভ করে নিলে ত্বক  দেখতে আরও উজ্জ্বল লাগে।’

৩২ বছরের কেটন থাকেন দুবাই শহরে। পেশায় তিনি সৌর্ন্দয বিশেষজ্ঞ অর্থাৎ বিউটি এক্সপার্ট। তার নিজের বিউটি ব্লগ রয়েছে। বিউটি ব্লগার হিসাবে তার খ্যাতি বিশ্বজোড়া। কী করলে মেয়েদের দেখতে আরও সুন্দর লাগবে বিলক্ষণ জানেন কেটন। সোশ্যাল মিডিয়াতেও হুডা বেশ জনপ্রিয়। সেখানে তাকে অনুসরণ করেন ১ কোটি ২৮ লক্ষ মানুষ। 

সোশ্যাল মিডিয়াতেও তিনি বলেছেন, শেভ করতে মেয়েদের দেখতে আরও সুন্দরী দেখায়। তিনি নিজেও নিয়মিত শেভ করেন। কেটন জানিয়েছেন, ছেলেরা যে রেজার দিয়ে দাড়ি কামান, ওিই একই রেজার দিয়ে তিনিও শেভ করেন। ব্যবহার করেন শেভিং ফোম। ছেলেদের মতোই কপাল বাদ দিয়ে চোখের নিচ থেকে সর্বএ শেভিং ফোম লাগান। তারপর রেজার দিয়ে শেভ করেন। 

এ কথা শোনার পর পাল্টা টুইট করে তার কাছে নেটিজেনরা জানতে চান – তবে যে শুনেছি যেখান ব্লেড চালানো যায় সেখানকার চুল দ্রুত গজায়? এমন কথাকে ‘ভ্রান্ত ধারণা’ বলে উড়িয়ে দিয়েছেন কেটন। উল্টে তার বক্তব্য, ‘মেয়েদের ধারণা শরীরের কোনও অঙ্গে রেজার দিয়ে শেভ করলে সেখানকার লোম বেশি শক্ত হয়ে ওঠে এবং তা আরও দ্রুত বৃদ্ধি পায়। এই ধারনা সম্পূর্ণ ভুল। মেয়েদের ক্ষেত্রে এমনটা মোটেই হয় না।’ তার বক্তব্য, ‘বরং শেভ করলে ত্বকের ঔজ্জ্বল্য আরও বাড়ে।’

No comments:

Post a Comment