Breaking

Friday, December 14, 2018

ছুরি আর ড্রিল মেশিন দিয়ে চলল স্যুজের মেরামতির কাজ


পরিকল্পনা ছিল ৬ ঘন্টার মধ্যে স্যুজ এমএস-০৯’এর ক্ষত মেরামতির কাজ শেষ হয়ে যাবে। কিন্তু সেই ক্ষত মেরামতির কাজ মিটল প্রায় ৭ ঘন্টা ৪৫ মিনিট ধরে। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী দুই রুশ নভশ্চর কমান্ডার সার্জে প্রোকোপেভে এবং ব্যাক ক্রিউ কমান্ডার ওলেগ কোনওনেনকো ওই স্পেস ক্রাফটির মেরামতি করলেন।


    মাত্র দু’মিলিমিটারের ক্ষত হয়েছিল স্যুজ এমএস-০৯’এ। অথচ সেই ক্ষিই মহাকাশ বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে বড় ধরনের ক্ষতি নিয়ে আসতে পারে। চলতি মাসেই স্যুজের ওই মহাকাশ যানটির পৃথিবীর উদ্দেশ্যে ফিরে আসার কথা। তার আগে দুই মিলিমিটারের ক্ষতটি চিন্তায় ফেলেছিল নাসার মহাকাশ বিজ্ঞানীদের। ওই ক্ষত নিয়ে স্যুজের নবম সংস্করণের মহাকাশ যান প্রথিবীর দিকে এলই বায়ুর সঙ্গে সংঘর্ষে আগুন লেগে যেতে পারে। তাই ক্ষত মেরামতের পরিকল্পনা গত মাস দুয়েক আগে থেকেই চলছিল।


    গত ৩ ডিসেম্বর বিশেষ স্যুজ যানে চড়ে আর্ন্তজাতিক মহাকাশ স্টেশনের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলেন কোনওনেনকো। তার সঙ্গে ছিল ক্ষত মেরামতের যাবতীয় সরঞ্জাম। যেমন ড্রিল মেশিন থেকে শুরু করে উরিডিয়াম পাত, ছুরি, বিশেষ কেবল তার। মহাকাশ স্টেশনে জুন মাসেই পৌঁছে গিয়েছিলেন প্রোকোপেভে। নাসার ক্যালিফোর্নিয়ার দফতর থেকে বেতারের মাধ্যমে ক্ষত মেরামতের প্রশিক্ষণও দেওয়া হয়েছিল প্রোকোপেভেকে। তারপর কোনওনেনকো মহাকাশ স্টেশনে পৌঁছানোর পর আরও স্পষ্ট হয়ে যায় স্যুজ এমএস-০৯’এর ত্রুটি কীভাবে মেরামত করা হবে তার কৌশল।


    উল্কাপিন্ডের আঘাতে যে জায়গাটি গর্ত হয়ে গিয়েছিল স্যুজের, সেই ভাঙা অংশটি ছুরির মতো ধারালো অস্ত্র দিয়ে বাদ দিলেন সার্জে প্রোকোপেভে। আর তারপর ড্রিল করে ইরিডিয়াম পাতকে বসানোর দায়িত্ব নিলেন কোনওনেনকো। কীভাবে এই ক্ষত মেরামত হয়েছে তার বিবরণ দিতে গিয়ে এক্সপিডিশন-৫৮’এর মুখ্য অধিকর্তা ডিমিট্রি রোগোজিন জানিয়েছেন, মূল ক্ষতটির চারপাশে ড্রিল মেশিন দিয়ে আরও চারটি গর্ত করা হয়েছিল। ওই গর্তের মধ্যেই ইরিডিয়াম পাতটিকে সংযুক্ত করা হয়েছে।’ নাসা জানিয়েছে পূর্ব পরিকল্পনা মাফিক ২০ ডিসেম্বর থেকে পরীক্ষামূলক ভাবে মহাকাশে বিচরণ করবে স্যুজ এমএস-০৯। সেই পরীক্ষায় ওই মহাকাশ যান সফল হলে তবেই ২৯ ডিসেম্বর পৃথিবীর উদ্দেশ্যে রওনা দেবে সে। ওই মহাকাশ যানে পৃথিবীতে ফিরে আসার কথা কোনওনেনকোর। আর তিনি সঙ্গে নিয়ে আসছেন স্যুজ মেরামতির সময় বাদ দেওয়া সেই কাটা-ছেড়া অবাঞ্চিত মহাকাশ যানের অংশগুলি। িএটি াসার তালিকা অনুসারে ২০১৩তম মহাকাশ ভ্রমন। এর আগে ২০১২ বার মহাকাশে বিভিন্ন সময় হেঁটে চলে বেড়িয়েছেন ভশ্চররা। কেন প্রায় পৌনে দু’ঘন্টার বেশি সময় লাগল স্যুজ মেরামতিতে তারও ব্যাখ্যা দিয়েছেন প্রোকোপেভ। তিনি বলেছেন, ‘উল্কাপিন্ডের আগুনের গোলা স্যুজে ধাক্কা মারার সঙ্গে সঙ্গে ইরিডিয়ামের পুরোনো চাদরটি বেঁকে গিয়েছিল। তাই ওই ভাঙা চাদরটি কাটতে গিয়েই সময় নষ্ট হয়েছে আমাদের।’

No comments:

Post a Comment