Breaking

Monday, November 19, 2018

রেল, বিমানেও দেখা যাবে প্যাটেলের মূর্তি


সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের মূর্তি ধেকতে যাওয়ার জন্য যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আরও উন্নত করার উদ্যোগ নিল গুজরাট সরকার। নর্মদা জেলার কেভাদয়া গ্রামে গত ৩১শে অক্টোবর বিশ্বের সবচেয়ে বড় ঐক্যের মূর্তির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

     সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের এই মূর্তিকে কেন্দ্র করে বিশেষ একটি সংগ্রহশালাও তৈরী করা হয়েছে। আর এই পযর্টনকেন্দ্রে পযর্টকদের আসতে যাতে কোনও অসুবিধা না হয় সেজন্য বিমান এবং রেল পরিষেবাও চালু করার উদ্যোগ নিয়েছে গুজরাট সরকার। খুব তারাতাড়ি এই পরিষেবা চালু হয়ে যাবে বলেই জানানো হয়েছে সরকারের তরফে। কবে থেকে কীভাবে বিমান পরিষেবা চালু করা যায় তা ঠিক করতে রেলওয়ে বোর্ড এবং এয়ারপোর্ট অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার (এএআই) শীযর্কতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপাণি। দিল্লি সফরে গিয়েই এই বৈঠকটি করেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী।


সেখানে এএআই-এর চেয়ারম্যান গুরুপ্রসাদ মহাপাত্রের সঙ্গে বৈঠকের পরেই মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, নমর্দা জেলার রাজপিপলা শহরে বিমানবন্দর তৈরী করা হবে। আর সেখান থেকেই বিমানে চড়ে যাত্রীরা দেখতে যেতে পারবেন ১৮২ মিটার উচ্চ সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের মূর্তি। কেভাদয়া থেকে রাজপিপলা শহরের দূরত্ব তেইশ কিলোমিটার। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, রাজপিপলা, ঢোলেরা এবং রাজকোটে বিমানবন্দর তৈরীতে রাজ্য সরকাকে সাহায্য কববে এএআই। এছাড়াও রেলবোর্ডের র্শীষ আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, কিভাদিয়া পযর্ন্ত রেলপথের সম্প্রসারণ করা হবে।


No comments:

Post a Comment